সূর্যের পথে পাড়ি জমাবে পার্কার সৌর প্রোব

পার্কার সৌর প্রোব
সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ০৬ আগস্ট ২০১৮ তারিখ সকালে প্রথমবারের মতো কোন মহাকাশযান সূর্যের কাছে যাওয়ার জন্য পৃথিবী থেকে যাত্রা করবে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সূর্যের বায়ুমণ্ডল ও সৌর রসায়ন নিয়ে গবেষণা করতে ‘পার্কার সৌর প্রোব’ পাঠানোর এই উদ্যোগ নিয়েছে। অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে বিখ্যাত জ্যোতির্পদার্থবিজ্ঞাী ইউজেন পার্কারের নামে। এই প্রথম কোনও জীবিত ব্যক্তির নামে কোনও অভিযানের নামকরণ করা হল। ইউজেন পার্কার ৬০ বছর আগেই সৌরবাতাসের অস্তিত্ব সম্পর্কে ধারণা পোষণ করেন।

সূর্যের উপরিতলের তাপমাত্রা ৫৫৩৭ ডিগ্রী সে. এবং বহিস্থ করোনার তাপমাত্রা প্রায় সাড়ে ১৯ লাখ ডিগ্রী সে. লসিয়াস! এত উচ্চ তাপে কোন বস্তুই টিকে থেকে সূর্যের কাছে ঘেষতে পারবে না। তাই এই মহাকাশযানের পক্ষে সুর্যের ৪০ লাখ মাইল দূরত্বের মধ্যে পৌছানো সম্ভব হবে। এই যানের ঢাল তৈরী করা হয়েছে সাড়ে চার ইঞ্চির কার্বন কম্পোজিট শিল্ড দিয়ে। এর ভেতর সুরক্ষিত থাকবে গবেষণার সব যন্ত্রপাতি। ৮ ফুট চওড়া এবং ৫ ইঞ্চি পুরু ধাতুর তৈরী এই যান ১৩৭১ ডিগ্রী সে. পর্যন্ত তাপমাত্রা সহ্য করে অক্ষত থাকতে পারবে।

জ্যোতির্পদার্থবিজ্ঞানী ইউজেন পার্কার
ফ্লোরিডা থেকে ‘ডেল্টা-৪ হেভি’ রকেটের মাধ্যমে মহাকাশে উৎক্ষিপ্ত হবে এই রোবটিক যানটি। যানটি সূর্যে পৌঁছাতে মঙ্গল গ্রহে অভিযানের তুলনায় ৫৫ গুণ বেশি শক্তির প্রয়োজন হবে। আকারে প্রায় গাড়ির সমান যানটিতে রয়েছে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি। সূর্যের ভেতরে চলা জটিল প্রক্রিয়া ও বিকিরণ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করবে ‘পার্কার সৌর প্রোব’। সেই তথ্য বিশ্লেষণ করে অনেক জটিল প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। যানটি ২০২৪ সালের ডিসেম্বর নাগাদ কাঙ্খিত অবস্থানে পৌঁছতে সক্ষম হবে।

২১ জুলাই, ২০১৮

সূত্র: নাসা


এ বিভাগের আরো খবর...
শনিগ্রহের চারটি নতুন তথ্য শনিগ্রহের চারটি নতুন তথ্য
নিউ হরাইজন মহাকাশযান তার পরবর্তী লক্ষ্যের ছবি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে নিউ হরাইজন মহাকাশযান তার পরবর্তী লক্ষ্যের ছবি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে
চাদের উৎপত্তি বিষয়ে আরও বিস্তারিত নতুন তথ্য চাদের উৎপত্তি বিষয়ে আরও বিস্তারিত নতুন তথ্য
বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহের রহস্যের মূলে কি এর চৌম্বকক্ষেত্র? বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহের রহস্যের মূলে কি এর চৌম্বকক্ষেত্র?
সূর্যকে স্পর্শ করতে যাত্রা করল নাসা’র পার্কার সূর্যকে স্পর্শ করতে যাত্রা করল নাসা’র পার্কার
মঙ্গল গ্রহে তরল পানির হ্রদ মঙ্গল গ্রহে তরল পানির হ্রদ
এনসেলাডাসের উপপৃষ্ঠের সমুদ্র থেকে জটিল জৈবিক পদার্থ উদগত হচ্ছে এনসেলাডাসের উপপৃষ্ঠের সমুদ্র থেকে জটিল জৈবিক পদার্থ উদগত হচ্ছে
মঙ্গল গ্রহে মৌসুম ভেদে মিথেন এর পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেছে মঙ্গল গ্রহে মৌসুম ভেদে মিথেন এর পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেছে
মঙ্গল গ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব! মঙ্গল গ্রহে প্রাণের অস্তিত্ব!

সূর্যের পথে পাড়ি জমাবে পার্কার সৌর প্রোব
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)