২৮ সেপ্টেম্বর সুপার মুন ও পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ তারিখে দেখা যাবে এ বছরের সুপারমুন বা উজ্জ্বলতম পূর্ণিমা। সুপারমুন হচ্ছে কক্ষপথে পৃথিবীর সাপেক্ষে চাঁদের নিকট অবস্থানে সংঘটিত পূর্ণিমাএসময় পূর্ণিমার চাঁদকে অন্যান্য সাধারণ সময়ের তুলনায় বেশি উজ্জ্বল দেখায়পৃথিবীর নিকটতম থাকা অবস্থায় চাঁদকে দূরতম অবস্থার তুলনায় ১৪ শতাংশ বড় এবং ৩০ শতাংশ উজ্জ্বল দেখতে পাওয়া সম্ভবজ্যোতির্বিজ্ঞানের ভাষায় পৃথিবীর সাপেক্ষে কক্ষপথে চাঁদের নিকটতম অবস্থানকে বলা হয় পেরিজি (perigee) এবং দূরতম অবস্থানকে বলা হয় অ্যাপজী (apogee)। এদিন পৃথিবী থেকে চাঁদ ৩৫৬,৮৭৭ কি.মি. দূরে অবস্থান করবে।

এই দিনে একইসাথে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ সম্পন্ন হবে। কক্ষপথ পরিভ্রমনের এক পর্যায়ে চাঁদ পৃথিবীকে মাঝখানে রেখে সূর্যের সাথে এক সমতলে এবং এক সরলরেখায় চলে এলে সূর্যের আলো পৃথিবীতে বাঁধা পড়ে চাঁদে পৌঁছতে পারে নাতখনই ঘটে থাকে চন্দ্রগ্রহণ। চন্দ্রগ্রহণ শুধুমাত্র পূর্ণিমাতেই ঘটে থাকে, তবে ঠিক সুপারমুনের দিনেই চন্দ্রগ্রহণ ঘটা কিছুটা বিরল।  তাই এই ঘটনাকে বলা চলে সুপারমুনের গ্রহণ। ১৯৮২ সালে সর্বশেষ এমনটি ঘটেছিল এবং আগামী ২০৩৩ সালে এমনটি ঘটবে।

যদিও বাংলাদেশ থেকে নির্দিষ্ট সময়ে সুপারমুন এবং পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ দেখা সম্ভব হবে না। কারণ সময়ানুযায়ী ২৮ সেপ্টেম্বর সকাল ৮.৫০ এ সুপারমুন সংঘঠিত হবে, ফলে চন্দ্রগ্রহণও দিনের বেলাতেই সংঘঠিত হবে। তবে আগের রাতে অর্থাৎ ২৭ সেপ্টেম্বর রাতের আকাশে চাঁদকে অপেক্ষাকৃত উজ্জ্বল দেখাবে। বাংলাদেশে চন্দ্রগ্রহণের সময়সূচি নিম্মরূপ:

চাঁদের উপচ্ছায়ায় প্রবেশ: সকাল ০৬:১১

চাঁদের প্রচ্ছায়ায় প্রবেশ: সকাল ০৭:০৭

পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ শুরু: সকাল ০৮:১১

সর্বোচ্চ পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ: সকাল ০৮:৪৭

পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ সমাপ্ত: সকাল ০৯:২৩

প্রচ্ছায়া থেকে চাদেঁর বেরিয়ে যাওয়া: সকাল ১০:২৭

উপচ্ছায়া থেকে চাদেঁর বেরিয়ে যাওয়া: সকাল ১১:২২


এ বিভাগের আরো খবর...
৯ মে ২০১৬: বুধ গ্রহের ট্রানজিট ৯ মে ২০১৬: বুধ গ্রহের ট্রানজিট

২৮ সেপ্টেম্বর সুপার মুন ও পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)